Header Ads

কখনও ট্রাফিক পুলিশ কখনও ভোজপুরি ছবির নায়ক

নয়াদিল্লি: একই অঙ্গে দুই রূপ। রিল ও রিয়াল ওয়ার্ল্ডের মাঝে সমান ভাবে পাল্লা দেন আনন্দ কুমার ওঝা। কখনও তাঁকে দেখা যায় আগ্রার ব্যস্ত রাস্তার ট্রাফিকে কড়া নজর রাখতে। আবার কখনও ভোজপুরি ছবির মুখ্য ভূমিকা অভিনয় করতেও দেখা যায়। পেশায় ট্রাফিক পুলিশ হলেও নেশার তাড়নায় তিনি এখন ভোজপুরি ছবির অভিনেতাও।

আগ্রার ট্রাফিক পুলিশ দফতরে সেলিব্রিটিদের মতোই ব্যবহার পান তিনি। তিনি অফিসে এলেই সহকর্মীরা তাঁর অভিজ্ঞতার কথা শুনতেও ভিড় জমান। ২০০১ সালে সাব-ইনস্পেক্টর পদে জয়েন করেন আনন্দ কুমার ওঝা। কিন্তু ছোট থেকেই অভিনেতা হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন তিনি। মুম্বইকে কেরিয়ার গড়ার জন্য পালিয়েও এসেছিলেন।

ওঝার সহপাঠী রাকেশ শর্মা বলছেন, ছোট থেকেই অভিনয়ের স্বপ্ন দেখত ও। দুবার বাড়ি থেকে পালিয়েছিল। একবার স্কুলে পড়তে আর একবার কলেজে পড়াকালীন। কিন্তু তাতে কোনও লাভ হয়নি। তার পরে পুলিশের চাকরি শুরু করে। কিন্তু অভিনয় করার হাল ছাড়েনি কখনওই।

ট্রাফিক ইন্সপেক্টর সতীশ রাই বলছেন, যাদের জীবনে প্যাশন রয়েছে তাদের অনুপ্রেরণা আনন্দ। পুলিশ হিসেবেও ও ভালো কাজ করেছে। ওকে সবসময়ে পাওয়া যায়। ও শ্যুটিংয়ের জন্য কাজের সঙ্গে আপোশ করে না। বার্ষিক বরাদ্দ ছুটিতেই ও অভিনয়ের কাজ করে।

কিন্তু কী ভাবে পুলিশের চাকরি থেকে ভোজপুরি ছবিতে সুযোগ পেলেন আনন্দ। তিনি বলছেন, ২০০৫ সালে মুলায়ম সিং যাদবের কনভয়ে ছিলাম। সেই সময়ে মুম্বই যাই। ভোজপুরি প্রযোজর নির্মল পাণ্ডের সঙ্গে দেখা হয় ও অডিশন দিই। পিয়ার করেলা তুহি সে নামে একটি ছবিতে আমি মুখ্য ভূমিকায় অভিনয়ের সুযোগ পাই।

এর পরে ২০১৩ সালে সবসে বড়া মুজরিম ছবিতে অভিনয় করে সাফল্য পান ও জনপ্রিয় হন আনন্দ। এর পরে আর থেমে থাকতে হয়নি তাঁকে। এই মুহূর্তে ট্রাফিক পুলিশের হাতে রয়েছে পাঁচটি ছবি- হিরোগিরি, কুম্ভ, লাভ এক্সপ্রেস, রান, মাহি। এপ্রিলে মাহি ছবির শ্যুটিং করতে ইউরোপে যাবেন তিনি।

কিন্তু মজার বিষয় হল, ছবিতে অভিনয় করার জন্য পারিশ্রমিক নেন না আনন্দ কুমার ওঝা। উত্তরপ্রদেশ পুলিশের বিধি অনুযায়ী অন্য কোথাও থেকে তিনি আয় করতে পারেন না। আনন্দ বলছেন, আমি অভিনয় করি, কারণ এটা আমার প্যাশন। কিন্তু পুলিশের চাকরি করার জন্য আমায় সরকার টাকা দেয়।

দুটি সম্পূর্ণ ভিন্ন ধারার কর্মক্ষেত্রে সফল হওয়ার জন্য আনন্দ কুমার ওঝা কৃতিত্ব দেন তাঁর স্ত্রী সুজাতা ওঝাকে। সুজাতা সংস্কৃতে পিএইচডি স্কলার। সুজাতা ও আনন্দের তিন সন্তানও বাবার পেশা ও নেশা দুই নিয়েই খুশি।

The post কখনও ট্রাফিক পুলিশ কখনও ভোজপুরি ছবির নায়ক appeared first on Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper.



from Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper
Source Url: https://www.kolkata24x7.com/anand-kumar-ojha-traffic-police/

No comments

Powered by Blogger.