Header Ads

চড়ছে পারদ , তবে দিনে থাকবে শীতের আমেজ

স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা: না আছে কোনও ঝঞ্ঝা। না রয়েছে মেঘে ঢাকা আকাশ। হাওয়া অফিসের পূর্বাভাস মতোই ধীরে ধীরে বাড়ছে শহরের তাপমাত্রা। এবার তাপমাত্রা উপরের দিকেই ক্রমে যাবে। এমনটাই জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। সকালের পারদেই তা স্পষ্ট। তবে এখনও তাপমাত্রা স্বাভাবিকের থেকে অনেকটাই কম রয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকালে শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৪.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি কম। গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ কম। সর্বনিম্ন ৩০ শতাংশ সর্বোচ্চ ৯৬ শতাংশ। ফলে তাপমাত্রা বাড়লেও আর্দ্রতার সর্বোচ্চ সর্বনিম্নে ফারাক থাকায় গরমের অনুভূতি হবে না। হালকা শীত অনুভূত হবে দিনভর। বুধবার শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৩.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে চার ডিগ্রি কম ছিল। আজ এক ডিগ্রি বেড়েছে তাপমাত্রা।

বুধবার পর্যন্ত দক্ষিন ও উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় জাঁকিয়ে শীত অনুভূত হয়েছে। গতকালের পারদ কতটা নীচে ছিল তা স্পষ্ট হবে হাওয়া অফিসের তাপমাত্রার অঙ্ক দেখলেই। গত ২৪ ঘণ্টায় আসানসোলের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১২.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস, বালুরঘাটের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ঘোরাফেরা করেছে ১২ ডিগ্রির আশেপাশেই। ব্যরাকপুরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১০.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, কোচবিহারের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বর্ধমানের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১.০, ক্যানিংয়ের ১১.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। মালদার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। জলপাইগুড়ির সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, পানাগড় ও শ্রীনিকেতনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১০.৩ ও ১০.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

দার্জিলিং ও কালিম্পংয়ের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল যথাক্রমে ৫.৩, ৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শিলিগুড়ির তাপমাত্রা ছিল সর্বনিম্ন ৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আজ বৃহস্পতিবার থেকে সর্বত্রই ধীরে ধীরে চড়বে পারদ।

The post চড়ছে পারদ , তবে দিনে থাকবে শীতের আমেজ appeared first on Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper.



from Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper
Source Url: https://www.kolkata24x7.com/temperature-rising-in-kolkata-and-neighborhood/

No comments

Powered by Blogger.