স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: করোনা মোকাবিলায় সরকারি ভাবে অতি প্রয়োজনীয় সামগ্রী হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে হ্যান্ড স্যানিটাইজার। ঘোষণা হলেও বাজারে তা অমিল। ফলে স্যানিটাইজার কিনতে গিয়ে খালি হাতেই ফিরতে হচ্ছে আম- জনতাকে। এই পরিস্থিতিতে মানুষের পাশে দাঁড়াতে উদ্যোগী হয়েছে পঞ্চায়েত দফতরের অধীনস্থ সিএডিসি বা সামগ্রিক এলাকা উন্নয়ন পর্ষদ।

পুরুলিয়া, বাঁকুড়া, শিলিগুড়ি, উত্তর ২৪ পরগনা, হুগলি ও বর্ধমানে পর্ষদের খামারে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারাই তৈরি করছেন হ্যান্ড স্যানিটাইজ়ার। পর্ষদের প্রশাসনিক সচিব সৌম্যজিৎ দাস জানিয়েছেন, ‘‘১৫, ৩০ এবং ৬০ মিলিলিটার আয়তনের স্যানিটাইজ়ারের বোতলে থাকছে ৬০ শতাংশ অ্যালকোহল, ৩০ শতাংশ অ্যালোভেরা ক্রিম ও গ্লিসারিনের মিশ্রণ এবং ১০ শতাংশ বিভিন্ন ধরনের প্রয়োজনীয় তেল।’’

মূলত তিন ধরনের তেল স্যানিটাইজ়ারে ব্যবহার করা হচ্ছে। পুরুলিয়ার অযোধ্যা পাহাড়ে প্রচুর মহুয়া গাছ রয়েছে। সেখানকার কেন্দ্রে স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা স্যানিটাইজ়ারে মহুয়া তেল ব্যবহার করছেন।পুরুলিয়ায় পর্ষদের তিনটি খামারে অ্যালোভেরা চাষ হয়। সেখানেই তৈরি হচ্ছে মহুয়া তেল। আবার বীরভূমে রয়েছে প্রচুর সোনাঝুরি গাছ। সেখানে স্যানিটাইজ়ারে ব্যবহার করা হচ্ছে সোনাঝুরি গাছ থেকে তৈরি করা তেল। শিলিগুড়ি ও কালিম্পংয়ের মহিলারা স্যানিটাইজ়ারে মেশাচ্ছেন চা গাছের তেল।

পর্ষদ সূত্রের খবর, নবান্ন, কলকাতা পুরসভা, বিধাননগর পুরসভা-সহ শহরের প্রতিটি সরকারি দফতরে গ্রামের মহিলাদের তৈরি স্যানিটাইজ়ার দেওয়া হবে।

স্যানিটাইজার ও মাস্কের কালোবাজারি রুখতে ইতিমধ্যেই প্রশাসনকে কড়া নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু তারপরও অনেক জায়গাতে সানিটাইজার চড়া দামে বিকোচ্ছে। পর্ষদের এই জৈব সানিটাইজার বাজারে সহজলভ্য হলে সাধারণ মানুষের উদ্বেগ অনেকটাই কমবে বলে আশাবাদী সরকার।

The post দেশে আকাল, মহুয়া- সোনাঝুরি গাছ থেকে তৈরি হচ্ছে জৈব সানিটাইজার appeared first on Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper.



from Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper
Source Url: https://www.kolkata24x7.com/sanitizer-made-from-mohuya-tree/