সোনাগাছিতে করোনা ‘থাবা’, বেছে বেছে, প্রয়োজনে কম কাস্টমার নেওয়ার নিদান

সৌপ্তিক বন্দ্যোপাধ্যায়: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে দেশের বিভিন্ন জেলায় জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে, কিন্তু দেশের বৃহত্তম যৌনপল্লীতে জনসমাগমে কীভাবে ঠেকাবে? সেখান থেকে যদি কোনও সমস্যা হয়? সতর্কতা অবলম্বন সিদ্ধান্ত নিয়েছে সোনাগাছিও। কীভাবে? যৌনকর্মীদের জন্য বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান নিয়েছে দুর্বার মহিলা সমন্বয় সমিতি।

সোনাগাছিতে প্রত্যেক দিন হাজার হাজার বললেও ভুল হবে লাখখানেক বিভিন্ন ধরনের মানুষ আসেন শারীরিক চাহিদা মেটানোর ইচ্ছায়। শহরের বেলেঘাটা আইডি’তে যখন ঘন ঘন করোনা সন্দেহে মানুষকে ভরতি করা হচ্ছে তখন সোনাগাছিতে মানুষ কোথা থেকে আসছেন তা বোঝার উপায় নেই। অজানা যিনি শারীরিক চাহিদা মেটানোর জন্য কোনও যৌনকর্মীর কাছে যাচ্ছেন তিনি কোনও সংক্রমণে আক্রান্ত কি না। এমন এক সময়ে সতর্কতা অবলম্বন প্রয়োজন।

দুর্বার মহিলা সমিতির প্রতিষ্ঠাতা ডঃ স্মরজিৎ জানা বলেন , ‘প্রথমত আমি মনে করছি না যে এতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু আছে। সোশ্যাল মাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে এম্ন কিছু লেখা বা বলা হচ্ছে যা মানুষের আতঙ্কের কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। সোনাগাছির যৌনকর্মীরাও সমাজের অঙ্গ, তারাও ভয় পাচ্ছেন। আর আমরা যেহেতু যৌনপল্লীতে কাজ করছি তাই সতর্কতা অবলম্বন প্রয়োজন রয়েছে কারণ এই জায়গাটা অনেকটা সমাজের মধ্যে হয়েও অনেকটা বাইরে। তাই এখানে কোনও সংক্রমণ হলে ব্যাপক সমস্যা হতে পারে’।

একইসঙ্গে তিনি বলেন , ‘তাই আমরা যৌনকর্মীদের যেমন পরামর্শ দিচ্ছি যে কারও জ্বর , সর্দি হলে সঙ্গে সঙ্গে আমাদের ক্লিনিকে আসতে, তেমনই গুরুতর সমস্যা হলে আমাদের কাছে নিয়ে আসতে বলেছি, আমরা তাঁকে শহরের আইসোলেসন কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করব।’

এরপরেই তিনি বলেন , ‘আমরা যৌনকর্মীদের এটাও বলেছি, যে সব কাস্টমার আসছে তাদের সর্দি কাশি আছে কি না সেটা যেন দেখে নেয়। প্রয়োজনে কাস্টমার কম নেওয়ার কথা বলেছি। পাশাপাশি, আমরা ওঁদের বলছি সেক্সের পর যেন ভালো করে হাত ধোওয়া হয়। কারণ হ্যান্ড টু হ্যান্ড কন্ট্যাক্ট খুব গুরুত্বপূর্ণ এই ভাইরাসের ক্ষেত্রে। স্যানিটাইজার বাজারে নেই তাই আমরা দিতে পারিনি তবে ভালো সাবান আমরা দিচ্ছি। সেটাই ব্যাবহার করার কথা আমরা বলছি। ডেটল ব্যাবহার করার কথাও বলছি।’

এদিকে ভারতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলেছে। কেন্দ্রের তরফে সরকারিভাবে ঘোষণা না করা হলেও শনিবার মধ্যরাতেই বিভিন্ন রাজ্যে মোট ১০০ জনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছিল। আর রবিবার রাতে সেই সংখ্যাটা বেড়ে দাড়াল ১১২। এর মধ্যে ১৭ জন বিদেশি পর্যটক আছেন। আক্রান্তদের মধ্যে অন্তত ১০ জন এখন সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠেছেন এবং ২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

The post সোনাগাছিতে করোনা ‘থাবা’, বেছে বেছে, প্রয়োজনে কম কাস্টমার নেওয়ার নিদান appeared first on Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper.



from Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper
Source Url: https://www.kolkata24x7.com/durbar-allert-as-corona-spreading-in-india/

Post a Comment

0 Comments