সকাল থেকেই গরমে পুড়ছে সল্টলেক, পারদ চড়ছে উত্তর দক্ষিণেও

স্টাফ রিপোর্টার , কলকাতা : সকাল থেকেই চড়ছে পারদ। সঙ্গে রয়েছে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তিও। আজ শুক্রবার ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস নেই। আকাশ পরিষ্কার থাকবে। ফলে বেলা গড়ালে সূর্যের তেজ বাড়বে। বৃদ্ধি পাবে আপেক্ষিক আর্দ্রতাও। এমনটাই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

সল্টলেকে সকালের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৩১.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বুধবার দমদম অঞ্চলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২১.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস, আগের দিন যা ছিল ২২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বৃহস্পতিবার তা এক লাফে বেড়ে হয়েছে ২৫.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবার তা হয়েছে ২৫.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুক্রবার আলিপুর ও তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি।

বুধবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। কিন্তু বৃহস্পতিবার এক লাফে দুই ডিগ্রি বেড়ে ২৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস হয়ে যায়, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। আজ সকালে গতকালের তুলনায় তাপমাত্রা একটু কম হলেও বেলায় তাপমাত্রা বাড়বে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। মঙ্গলবার অঞ্চলের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৩.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিক।

মঙ্গলবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে কম ছিল। তবে তা সোমবারের তুলনায় সামান্য বারে তাপমাত্রা। ওইদিন সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বুধবার তাপমাত্রা আরও একধাপ বেড়ে হয়েছে ৩৩.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা আপাতত স্বাভাবিকের সামান্য নীচে। বৃহস্পতিবার তা হয়ে যায় ৩৫.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আজ তা ৩৬এ পা রাখতে।পারে।

মঙ্গলবার অলিপুরের আর্দ্রতার পরিমাণ ছিল সর্বোচ্চ ৯১ শতাংশ , সর্বনিম্ন ৩৩ শতাংশ। বুধবার তা বেড়ে হয় সর্বোচ্চ ৯৫ সর্বনিম্ন ৩৮ শতাংশ। বৃহস্পতিবার সর্বনিম্ন আর্দ্রতার পরিমাণ আরও একটু বেড়ে হয়েছে ৩৯ শতাংশ। শুক্রবার সর্বোচ্চ আর্দ্রতার পরিমান বেড়ে হয়েছে ৯৭ শতাংশ।

The post সকাল থেকেই গরমে পুড়ছে সল্টলেক, পারদ চড়ছে উত্তর দক্ষিণেও appeared first on Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper.



from Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper
Source Url: https://www.kolkata24x7.com/weather-update-for-kolkata-and-neighbourhood/

Post a Comment

0 Comments