লক্ষ্মণ নেই-তবু মৃত্যু রোগীর, করোনার নতুন ট্রেন্ড উদ্বেগ বাড়াচ্ছে

অমরাবতী: মারণ করোনা ভাইরাসের এই ধারা উদ্বেগ বাড়াচ্ছে চিকিৎসক মহলে। কোনও ব্যক্তির মধ্যে করোনার কোনও লক্ষ্মণ না থাকলেও, আচমকাই মৃত্যু হচ্ছে তাঁর। পরে দেখা যাচ্ছে, তিনি করোনা আক্রান্ত ছিলেন। অন্ধ্রপ্রদেশে এই ধরণের মৃত্যু বেশ কয়েকটি হওয়ায় রীতিমত চিন্তায় পড়েছেন রাজ্যের চিকিৎসকরা।

চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন রোগির মধ্যে করোনার কোনও লক্ষ্মণ না পাওয়া গেলেও, হঠাতই শারীরিক পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে তাঁর। চিকিৎসার শুরুর আগেই মৃত্যু হচ্ছে রোগির। মেডিক্যাল রিপোর্ট জানাচ্ছে, যদি কোনও ব্যক্তির থেকে অন্তত ২০০ জন করোনা আক্রান্ত হন, তবে তাঁর এই ভাবে মৃত্যু হতে পারে। মেডিক্যাল পরিভাষায় এই ব্যক্তিকে বলা হচ্ছে সুপার স্প্রেডার।

উল্লেখ্য, অন্ধ্রপ্রদেশের পূর্ব গোদাবরী জেলার পেডাপুডি ও সংলগ্ন এলাকায় এরকম এক ব্যক্তির সন্ধার মিলেছে, যার নিজের কোনও করোনা লক্ষ্মণ ছিল না। অথচ তিনি সুপার স্প্রেডার ছিলেন। স্থানীয় কাঁকিনাড়ার একটি হাসপাতালে ভরতি হওয়ার পর আধ ঘন্টার মধ্যে তাঁর মৃত্যু হয়।

গবেষকরা জানাচ্ছেন, এই ধরণের অ্যাসিম্পোট্যোম্যাটিক রোগিরা প্রাথমিকভাবে সুস্থ বলেই মনে করা হয়। কিন্তু ভিতরে ভাইরে বিভিন্ন অংশের ক্ষতিসাধন করে চলে। আচমকাই এঁদের রক্তে অক্সিজেনের পরিমাণ কমে যায়। এরফলে চিকিৎসার বিন্দুমাত্র সুযোগও এই ধরণের রোগিরা দেন না। মারা যান।

এদিকে, গোটা বিশ্ব এখন মারণ করোনার সেকেন্ড ওয়েভের প্রহর গুণছে। প্রথম দফাতে গোটা বিশ্বজুড়ে কার্যত ধ্বংস যজ্ঞ চালিয়েছে। মারণ করোনা দ্বিতীয় দফায় কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে সেটা ভেবেই আতঙ্কিত মানুষজন। কবে এই মারণ রোগ থেকে মুক্তি মিলবে তার কোনও সঙ্কেত এখনও পাওয়া যায়নি। তবে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় চলছে ভ্যাকসিন তৈরির কাজ।

কিন্তু নির্দিষ্ট ভ্যাকসিনেই যে মারণ করোনাকে মারা যাবে সেই হদিশ এখনও দিতে পারেনি কোনও দেশই। তবে বিজ্ঞানীদের আশা, খুব শীঘ্রই হয়তো মারণ করোনার ছবল থেকে রক্ষা করা যাবে বিশ্বের মানুষকে। বিশেষ করে অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি’র একটি গবেষণা অন্তত সেটাই বলছে।

তাঁদের মতে, আগামী অক্টোবরেই আত্মপ্রকাশ করবে কোভিড-১৯-এর প্রতিষেধক ভ্যাকসিন। তবে সবকিছু যদি ঠিকঠাক চলে তাহলেই। ইতিমধ্যে অক্সফোর্ড তাঁদের সম্ভাব্য চ্যাডক্স১ এনকোভ-১৯ ভ্যাকসিনের তৃতীয় দফার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ শুরু করেছে। একটি ওষুধ প্রস্তুতকারক সংস্থার সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এই ভ্যাকসিন তৈরি করেছে।

তবে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন ন্যাজাল স্প্রে বা ইনহেলার হিসেবে দেওয়া হলে আরও ভালো কাজ করবে বলে মনে করছেন অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি এবং লন্ডনের ইম্পেরিয়াল কলেজের গবেষকরা। আর সেই লক্ষ্যেই এখন কাজ করছেন তাঁদের গবেষকরা। অক্সফোর্ডের একটি গবেষণা জানাচ্ছে, ইতিমধ্যে তাঁদের তৈরি ভ্যাকসিন পরীক্ষা করা হয়েছে কয়েক দফাতে।

The post লক্ষ্মণ নেই-তবু মৃত্যু রোগীর, করোনার নতুন ট্রেন্ড উদ্বেগ বাড়াচ্ছে appeared first on Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper.



from Kolkata24x7 | Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading online Newspaper
Source Url: https://www.kolkata24x7.com/no-symptom-of-covid-sudden-death-this-rising-trend-worries-andhra-pradesh/

Post a Comment

0 Comments